মেনু নির্বাচন করুন

ঠাকুরগাঁও জেলা ব্রান্ডিং


বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা, তাৎক্ষণিক সমস্যা মোকাবেলার অদম্য মনোবল, দূর্যোগ দমনে অসামান্য সফলতা সর্বোপরি এমডিজি অজর্ণে সাফল্য লাভে তাঁর দৃঢ় নেতৃত্ব গোটা বিশ্বে ব্যপক সাড়া জাগিয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্ভাবিত বিভিন্ন কর্মসূচী যেমন একটি বাড়ি একটি খামার, আশ্রয়ন প্রকল্প, কমিউনিটি ক্লিনিক, নারীর ক্ষমতায়ন, সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী, শিক্ষা সহায়তা, পরিবেশ সুরক্ষা, বিনিয়োগশ বান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি, প্রতি ঘরে বিদ্যুৎ, ডিজিটাল বাংলাদেশ ইত্যাদি ২০৩০ সালের আগেই বাংলাদেশকে কাঙ্খিত অর্থনৈতিক অর্জনে সর্বাধিক সাফল্য এনে দেবে এ বিশ্বাস গোটা দেশবাসী সহ বিশ্ব নেতৃবৃন্দের। ক্রমবর্ধমান এ উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় দেশের প্রতিটি অঞ্চলকে সমভাবে উন্নত করা এবং প্রতিটি জেলার স্বাতন্ত্র বৈশিষ্টকে বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরা জেলা ব্র্যান্ডিং এর অন্যতম লক্ষ্য।

ঠাকুরগাঁও- এ জনপদটি সুপ্রাচীন কাল তেকে বাংলার মূল ভূখন্ডের অন্তর্ভুক্ত হলেও এবং এর জীবনধারায় মূল স্রোতের প্রবাহ  বিদ্যমান থাকলেও এখানকার প্রকৃতি কিছুটা ভিন্ন ধরণের। সে সাথে এখানকার মানুষও যেন অনেকটাই স্বতন্ত্র স্বভাবের। এ জেলার পূর্ব নাম ছিল ‘নিশ্চিন্তপুর’। ‘নিশ্চিন্তপুর’ নামটি উচ্চারিত হলেই চোখের সামনে ভেসে উঠে নিশ্চিন্তে বসবাসের উপযোগী কোন জনপদের ছবি। হাজার বছরের পুরোনো ঐতিহ্য এবং বর্তমানের অর্থনৈতিক সম্ভাবনা ও পর্যটন শিল্পের অপার সম্ভাবনার সম্মিলনে ঠাকুরগাঁও জেলা এক ঐতিহ্য ও সম্ভাবনার জনপদ। ঠাকুরগাঁও জেলার স্বতন্ত ভৌগোলিক বৈশিষ্ট্য, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, ইতিহাস ও হাজার বছরের পুরোনো ঐতিহ্য কে তুলে ধরে কার্যকর ব্র্যান্ডিংয়ের মাধ্যমে জেলাটিকে দেশীয় ও আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে পরিচিত করা সম্ভব। এর ফলে জেলাটির পরিচিতি বৃদ্ধির পাশাপাশি স্থানীয় অর্থনীতির বিদ্যমান সম্ভাবনাসমূহকে ঘিরে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহন করলে দেশের সামষ্টিক অর্থনীতিতে কাঙ্খিত গতির সঞ্চার করবে।





Share with :

Facebook Twitter